তথ্য জানতে চাওয়ায় বাংলাদেশ রয়টার্সের সাংবাদিককে হুমকি

তথ্য জানতে চাওয়ায় বাংলাদেশ রয়টার্সের সাংবাদিককে হুমকি bd royters

কিশোরগঞ্জ: তুমি গিয়ে ওয়ালী নেওয়াজ খান কলেজের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করো এখন কোন কাজ না থাকলে কলেজ থেকে বের হও। কিছু তথ্য জানতে চাওয়ায় বাংলাদেশ রয়টার্সের কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি আকিব হৃদয়ের সাথে এমনি উদ্ভটতম আচরণ করেছেন ওয়ালী নেওয়াজ খান কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আল-আমিন। অপরদিকে সহকারী অধ্যাপক মোঃ আলী আজগর টুটুল এই সাংবাদিককে বেধেঁ রাখারও হুমকি দেন।

বৃহস্পতিবার ১০ই জুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতাধীন অনার্স শেষ বর্ষের ভাইভা পরীক্ষা হচ্ছে জুম এপসের মাধ্যমে। এই পরীক্ষার জন্য কোন টাকা নেওয়ার কথা না থাকলে ওয়ালীনেওয়াজ খান কলেজ কর্তৃপক্ষ প্রত্যেক ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে দুইশত টাকা করে নিয়েছেন।

খোজঁ নিয়ে জানা যায় এই টাকা দিয়ে স্যারদের জন্য গিফট কেনা হবে। এসব তথ্য নেওয়ার জন্য ওয়ালীনেওয়াজ খান কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে কথা বলতে গেলে সহকারী অধ্যাপক আজগর আলী টুটুল সাংবাদিকের সাথে বাজে ব্যবহার করেন এবং সাংবাদিককে বেধেঁ রাখার হুমকি দেন।

অপরদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে অনেক শিক্ষার্থী বলেন, দুইশত টাকা করে সবার কাছ থেকে নিয়ে আমরা আলী আজগর টুটুল স্যার এর হাতে তুলে নিয়েছি, আলী আজগর টুটুল তাদের সাথে প্রায়ই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে খারাপ আচরণ করেন। কলেজের শিক্ষার্থী হওয়ায় তারা কোথায় আলী আজগর টুটুলের বিরুদ্ধে বলেও এর প্রতিকার পাননি।

ওয়ালী নেওয়াজ খান কলেজের অধ্যাপক মোঃ আল আমীন বলেন, তুমি গিয়ে ওয়ালী নেওয়াজ খান কলেজের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করো, কলেজের বিরুদ্ধে বোর্ড থেকে লোক আসুক তদন্ত করুক, আর এই মূহুর্তে কলেজ থেকে বেরিয়ে যাও।

 

বিডি রয়টার্স/এসএস