শনিবার | ১লা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | গ্রীষ্মকাল | ১৫ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

বুলগেরিয়ার গুহায় ৪৫ হাজার বছর আগের মানবচিহ্ন!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বুলগেরিয়ার ড্রায়ানোভো শহরের বাচো কিরো গুহায় মিলল মানবজাতির অতিপ্রাচীন দেহাবশেষ। সেই অবশেষের ডিএনএ টেস্ট করে দেখা যাচ্ছে, তা ৪৫ হাজার বছর আগের মানুষের!

বিজ্ঞানীরা বলেছেন, এই পরীক্ষা করে জানা গেছে এর মধ্যে রয়েছে নারী ও পুরুষ উভয়ের নিদর্শন। এর মধ্যে রয়েছে তিন পুরুষের দেহাংশ যা ৪৫ হাজার বছরের পুরনো। পাওয়া গেছে এক নারীর দেহাংশও। তবে সেটি ৩৫ হাজার বছরের পুরনো। কিন্তু তথ্য হল, হোমো সেপিয়েন্স এ গ্রহে প্রথম এসেছিল তিন লাখ বছর আগে আফ্রিকায়। পরে সেখান থেকে তারা অন্যত্র ছড়িয়ে পড়ে। তা হলে বুলগেরিয়ার এই গুহায় যে নিদর্শন মিলল তা কি আফ্রিকা থেকেই আসা? এখানে নিয়ান্ডার্থাল গোষ্ঠীর মানবজাতি সঙ্গে হোমো সেপিয়েন্সের একটা তুল্যমূল্য আলোচনার অবকাশও তৈরি হয়ে যায়।

এ গ্রহ থেকে মোটামুটি ৪০ হাজার বছর আগেই মুছে গিয়েছে নিয়ান্ডার্থাল গোষ্ঠীর রাজত্ব। এর পরে ক্রমে শুরু হয় হোমো সেপিয়েন্সের পর্ব। তবে বাচো কিরো গুহায় পাওয়া এই মানবচিহ্ন থেকে এক অজানা বিষয় বেরিয়ে আসছে। এতদিন জানা ছিল নিয়ান্ডার্থাল ও হোমো সেপিয়েন্সে পরস্পরের প্রতিস্পর্ধী। কিন্তু তাদের মধ্যে যে কোনও জেনেটিক যোগাযোগ গড়ে উঠেছিল, এটা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছিল না। বাচো কিরো সেই বিষয়ে আলো ফেলল।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, আর অর্থ আধুনিক এই মানবগোষ্ঠীর আদিপুরুষ যারা ছিল তারা কোনও ভাবে নিয়ান্ডার্থাল গোষ্ঠীর সঙ্গে। সূত্র: জি নিউজ।

বিডি রয়টার্স/এ কে জি

Translate »