কুষ্টিয়া মেডিকেল প্রকল্পে অনিয়ম: শাস্তির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

কুষ্টিয়া মেডিকেল প্রকল্পে অনিয়ম: শাস্তির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল নির্মাণ প্রকল্পে অনিয়মের ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির আওতায় আনার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত চলতি অর্থ বছরের ৫ম একনেক সভায় তিনি এই নির্দেশ দেন। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি সভায় যোগ দেন। রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রি, প্রতিমন্ত্রী, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য ও সচিবরা সভায় যোগ দেন।

সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের অনিয়মে যারা জড়িত, তাদেরকে শাস্তির আওতায় আনতে হবে। তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। এমনকি যদি কেউ অবসরে যায়, তাকেও শাস্তির আওতায় আনার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় পরিকল্পনা কমিশনের আর্থ সামাজিক বিভাগের সদস্য নাসিমা বেগম সংবাদ সম্মেলনে বলেন, পাবলিক ডিমান্ড রিকাভারি অ্যাক্ট (পিডিআরএ) নামের একটি আইন আছে। অনিয়ম করে কেউ অবসরে গেলেও সেই আইনে তাকে শাস্তির মুখোমুখি করা যায়।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের ৩ মার্চ ২৭৫ কোটি টাকা ব্যয়ের কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নির্মাণ প্রকল্পটি একনেকে অনুমোদন পায়। তবে প্রকল্পের মেয়াদ ও ব্যয় কয়েক দফা বাড়িয়েও সেই প্রকল্প এখনও শেষ হয়নি। সর্বশেষ চলতি বছরের ৫ জানুয়ারি, প্রকল্পটির মেয়াদ ২০২৩ সাল পর্যন্ত এবং ব্যয় বাড়িয়ে ৬৮২ কোটি টাকা করা হয়।

একনেক সভায় ছয় হাজার ৫৫১ কোটি ২৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ৯টি প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এর মধ্যে চারটি নতুন প্রকল্প ও পাঁচটি সংশোধিত প্রকল্প।

৯ প্রকল্পের মধ্যে সরকারি অর্থায়নে তিন হাজার ৭৪২ কোটি ২৯ লাখ টাকা, সংস্থার নিজস্ব ঋণ ২৬ কোটি ২২ লাখ টাকা ও বৈদেশিক ঋণ দুই হাজার ৭৮২ কোটি ৭৬ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে।

একনেক সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম সংবাদ সম্মেলনে প্রকল্পগুলোর বিস্তারিত তুলে ধরেন।

একনেকে অনুমোদন পাওয়া ৯টি প্রকল্প হলো-

১। সায়েদাবাদ পানি শোধনাগার (ফেজ-৩) (প্রথম সংশোধিত)।

২। কৃষি আবহাওয়া তথ্য পদ্ধতি উন্নতকরণ (প্রথম সংশোধিত)।

৩। কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল স্থাপন, কুষ্টিয়া (দ্বিতীয় সংশোধিত)।

৪। জগন্নাথপুর ও মোহনগঞ্জ উপজেলায় দুটি কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (এটিআই) স্থাপন।

৫। টাঙ্গাইল-দেলদুয়ার-লাউহাটি-সাটুরিয়া-কাওয়ালীপাড়া-কালামপুর বাসস্ট্যান্ড সড়ক আঞ্চলিক মহাসড়কের যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ।

৬। রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার নদীতীর সংরক্ষণ, ছোট নদী, খাল-বিল পুনঃখনন ও জলাবদ্ধতা নিরসন।

৭। শরীয়তপুর জেলার কীর্তিনাশা নদীর ডান ও বাম তীর রক্ষ।

৮। বড়পুকুরিয়া-বগুড়া-কালিয়াকৈর ৪০০ কেভি লাইন (প্রথম সংশোধিত)।

৯। খুলনা হতে মোংলা পোর্ট পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণ (দ্বিতীয় সংশোধিত)।

বিডি রয়টার্স/এ.সি



আজকের সব খবর