চেক জালিয়াতির মামলায় উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতির জেল জরিমানা

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহে চেক জালিয়াতির মামলায় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মনিরুজ্জামান মামুনকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা ও এক বছরের জেল প্রদান করেছে আদালত। তবে, রায়ের সময় মনিরুজ্জামান মামুন অনুপস্থিত ছিলেন।

মনিরুজ্জামান মামুন জেলার ভালুকা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি।

বৃহস্পতিবার (০৭ অক্টোবর) সকালে ময়মনসিংহের তৃতীয় জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক হাবিবুল্লাহ মাহমুদ রায় ঘোষনা করেন। এই রায়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মনিরুজ্জামান মামুনকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা ও এক বছরের জেল প্রদান করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদী পক্ষের আইনজীবি নুরুল হক।

তিনি জানান, পূর্ব সম্পর্কের সূত্রে মো. কামরুল ইসলামের কাছ থেকে ২৪ লাখ টাকা ধার নেয় ছাত্রলীগ নেতা মামুন। পরে আলোচনার মাধ্যমে
কামরুল ইসলামকে ভালুকা ন্যাশনাল ব্যাংকের অধিনে ১৮ লাখ টাকার একটি চেক প্রদান করে ওই ছাত্রলীগ নেতা। কিন্তু পরবর্তীতে মামুনের একাউন্টে টাকা না থাকায় চেকটি ডিজঅনার হয়।

এ ঘটনায় ২০১৬ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি ভুক্তভোগি কামরুল ইসলাম ওরফে চাঁন মিয়া বাদি হয়ে ময়মনসিংহের তৃতীয় জেলা দায়রা জজ আদালতে চেক জালিয়াতির মামলা করেন। ওই মামলায় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মনিরুজ্জামান মামুনকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা ও এক বছরের জেল প্রদান করেছে আদালত।

এ বিষয়ে মামলার আইনজীবী ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এড. নূরুল হক বলেন, আমরা ন‍্যায় বিচার পেয়েছি। এই রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন মামলার বাদি।

 

বিডি রয়টার্স/এসএস



আজকের সব খবর
সারাবাংলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত