দুর্বৃত্তদের আগুনে পুড়ল মাঝিপল্লীর বসতঘর

রংপুর: ফেসবুকে এক কিশোরের পোস্টকে কেন্দ্র করে রংপুরের পীরগঞ্জের মাঝিপল্লীর বেশ কয়েকটি বাড়িতে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

রোববার (১৭ অক্টোবর) রাত ৮টা থেকে এ তাণ্ডব শুরু হলেও দমকলের ৫টি ইউনিট এসে যখন একদিকে আগুন নেভানোর চেষ্টা করছিল, তখন আরেক দিকে আগুন দিচ্ছিল হামলাকারীরা।

এছাড়া হামলাকারীরা লুট করে নিয়ে যায় গবাদিপশু ও নগদ টাকা। এসময় কয়েকজন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র শিবিরকে অভিযুক্ত করে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ছাত্রলীগ।

দুষ্কৃতকারীদের দেওয়া আগুনে চোখের সামনে এভাবেই পুড়ে যায় মাঝিপাড়ার মানুষের ঘরবাড়ি। গবাদি পশুগুলো লুট হয়ে যাওয়ায় আহাজারি আর আর্তচিৎকারে ভাঙে রাতের নিস্তব্ধতা।

ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, নরেশ নামে এক কিশোরের ফেসবুকে পোস্ট দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুর্বৃত্তরা মাঝিপল্লীতে ঢুকে চালায় তাণ্ডব।

খবর পেয়ে প্রথমে পুলিশ ও পরে র‍্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। এ সময় ফাঁকা গুলি ও কাঁদুনে গ্যাস ব্যবহার করে পুলিশ।

এদিকে এ ঘটনার জন্য জামায়াত-শিবিরকে দায়ী করে রংপুর শহরে মিছিল করে ছাত্রলীগ। এ সময় ছাত্রলীগের এক নেতা বলেন, উস্কানিমূলক ফেসবুক পোস্ট নিয়ে ৫০টির মতো বাড়ি তারা পুড়িয়ে ফেলেছে। যারা ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছে তাদের বিচারের আওতায় আনার দাবি তাদের।

এই ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়েছে। সন্দেহভাজন ১৫-২০ জনকে আটক করা হয়েছে। পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

 

বিডি রয়টার্স/এসএস



আজকের সব খবর