শিশুদের জন্য ফেসবুক ক্ষতিকর, দুর্বল করছে গণতন্ত্র

শিশুদের জন্য ফেসবুক ক্ষতিকর, দুর্বল করছে গণতন্ত্র

ফেসবুক গণতন্ত্রকে দুর্বল ও বিভাজিত করছে বলে মন্তব্য করেছেন ফেসবুকেরই সাবেক কর্মী ফ্রান্সেস হাউজেন। এ ছাড়া এই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটি শিশুদের ক্ষতি করছে বলেও যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রণেতাদের কাছে অভিযোগ করেছেন তিনি।

৩৭ বছর বয়সী এই সাবেক প্রোডাক্ট ম্যানেজার ক্যাপিটল হিলের শুনানিতে ফেসবুকের বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনা করেন। তবে এর জবাবে ফেসবুক জানিয়েছে, মিসেস হাউজেন যেসব বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন, সেসব বিষয়ে তার কোনো ধারণা নেই।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম জায়ান্টটির নিয়ন্ত্রণ ও যাচাইয়ের বিষয়ে ক্রমবর্ধমান দাবির মুখে এই অভিযোগটি এসেছে। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তাদের মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ২ দশমিক সাত বিলিয়ন। এ ছাড়া, আরও কয়েক লাখ মানুষ তাদের অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম যেমন হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করে।

তবে, শুরু থেকেই গ্রাহকদের গোপনীয়তা রক্ষায় ব্যর্থ হওয়া এবং গুজব ও ভুল তথ্যের বিস্তার রোধে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা না নেওয়ায় সমালোচিত হয়ে আসছে ফেসবুক। মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটে রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটিক পার্টি উভয়েই ফেসবুকের পরিবর্তনের বিষয়ে একমত প্রকাশ করেন। যেটি দেশটির রাজনৈতিক দল দুটির জন্য বিরল ঘটনাও।

ফেসবুক ও এর অধীন সবগুলো অনলাইন সেবা বন্ধ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত সেই কারিগরি ত্রুটি সারিয়ে তোলার প্রাথমিক কাজটি হয়েছে। এখন আগের ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রেখে কনফিগারেশনের কাজ চলছে। সূত্র আরও জানায়, এবার বিপর্যয়ের ক্ষেত্রে ২০১৯ সালের মতো সার্ভারের ত্রুটি ঘটেনি। সেবার ফেসবুক বন্ধ ছিল টানা ১৪ ঘণ্টা।

বিডি রয়টার্স/এ কে জি



আজকের সব খবর