যুক্তরাষ্ট্রে গরিলার দেহে করোনা

যুক্তরাষ্ট্রে গরিলার দেহে করোনা

একটি চিড়িয়াখানায় ২০টির মধ্যে ১৩টি গরিলার দেহে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। এদের মধ্যে রয়েছে ৬০ বছরের একটি গরিলাও। চিড়িয়াখানাটি যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের আটলান্টায়।

শুক্রবার চিড়িয়াখানার তরফে বলা হয়েছে, এক কর্মচারী দেখতে পান গরিলাদের মধ্যে কাশি, নাক দিয়ে পানি পড়ছে। খাওয়ার ক্ষেত্রেও অনীহা দেখতে পাওয়া যায়। এরপরই সন্দেহ হয় চিড়িয়াখানা কর্মকর্তাদের। ভেটেরিনারি ল্যাবে পাঠানো হয় নমুনা। সেখান থেকেই জানানো হয় করোনা পজিটিভের খবর। তবে আরও নিশ্চিত হতে নমুনা আরেক ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। তবে আপাতত এই করোনা আক্রান্ত গরিলাদের মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি দিয়ে ট্রিটমেন্ট শুরু হয়েছে। চিড়িয়াখানার জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা প্রাণিস্বাস্থ্য বিষয়ক স্যাম রিভেরা বলেন, মনিটরিং টিম নিবিড়ভাবে তাদের দেখভাল করছে। আশা করা হচ্ছে তারা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে।

চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ধারণা করা হচ্ছে, গরিলাগুলোর দেখভালের দায়িত্বে থাকা এক ব্যক্তির মাধ্যমে ছড়াতে পারে ভাইরাস। যদিও ওই ব্যক্তি টিকা নিয়েছিলেন এবং সুরক্ষা সরঞ্জামও ব্যবহার করতেন। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, গরিলারা চারটি গ্রুপে থাকত। এখন তাদের আলাদা রাখা হচ্ছে। পুরোপুরি সুস্থ হয়ে গেলে তাদের টিকা দেওয়া হবে।

সান দিয়েগো চিড়িয়াখানা গত ফেব্রুয়ারিতে জানিয়েছিল তাদের আটটি গরিলা করোনা আক্রান্ত। এরপর ক্যালিফোর্নিয়া চিড়িয়াখানাও জানায়, বিপন্ন তালিকায় থাকা দুটি স্নো লেপার্ড করোনায় আক্রান্ত হয়। তথ্যসূত্র : দ্য গার্ডিয়ান।

বিডি রয়টার্স/এ কে জি



আজকের সব খবর