সার্টিফিকেট সংশোধনের উপায়

সার্টিফিকেট সংশোধনের উপায়

শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ বা সার্টিফিকেট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। চাকরি-বাকরিতো বটেই, বিদেশ যাওয়া থেকে শুরু করে যেকোনো কাজে শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদের প্রয়োজন পড়ে। এতে সামান্য একটি ভুল, আপনাকে ভোগাতে পারে দীর্ঘদিন। এরপরেও কখনো কখনো সার্টিফিটে ভুল থেকে যায়।

সে ভুল সংশোধন করার জন্য কেউ কেউ আবার দালাল বা থার্ড পার্টি ধরেন। কিন্তু এদের পেছনে ঘুরে ঘুরে মাথার ঘাম পায়ে ফেলেও কাজের কাজ কিছুই হয়না। উল্টো খোয়া যায় টাকা পয়সা। তাহলে উপায়? উপায় আছে। সে তথ্য বাতলে দিতেই আজকের আয়োজন-

অনলাইন ও অফলাইন দুইভাবে সার্টিফিকেট সংশোধন করা যায়। তবে ঝামেলা এড়াতে অনলাইনে সংশোধন করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

প্রথমেই যা করতে হবে

সার্টিফিকেটের নাম বা জন্মতারিখের ভুল সংশোধনের জন্য নোটারি বা এফিডেভিট করাতে হবে। এটি করাতে হবে একজন আইনজীবীর মাধ্যমে। এক্ষেত্রে প্রার্থীর নিজের বয়স ১৮ বছরের বেশি হলে তিনি নিজেই এফিডেভিট করতে পারবেন।

তবে ১৮ বছরের কম হলে বা প্রার্থী যদি তার মা-বাবার নাম সংশোধন করতে চান তাহলে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে প্রার্থীর বাবা কর্তৃক প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট বা নোটারি পাবলিকের কাছ থেকে এফিডেভিট করাতে হবে।

বিডি রয়টার্স/এ কে জি


পরের সংবাদ

আজকের সব খবর