দেশে প্রথম হিজড়া সংবাদ পাঠক তাসনুভা !

ঢাকা: দেশে প্রথমবারের মতো কোনো ট্রান্সজেন্ডার বা তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) সংবাদ পাঠক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হলো। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বৈশাখী টেলিভিশন তাসনুভা আনান শিশির নামে এক হিজড়াকে সংবাদ পাঠক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।

বৈশাখী টিভি কর্তৃপক্ষ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, বাংলাদেশের স্বাধীনতার মূলমন্ত্র ছিল দেশের মানুষের মুক্তি, সবার জন্য বাসযোগ্য, বৈষম্যহীন একটি সমাজ গড়ে তোলা।  স্বাধীনতার ৫০ বছরে গর্ব করার মতো অনেক অর্জন থাকলেও বৈষম্যহীন ও সবার জন্য নিরাপদ জীবন নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি। এই ব্যর্থতার কারণে সবচেয়ে বড় অবহেলিত জনগোষ্ঠীগুলোর মধ্যে ট্রান্সজেন্ডাররা অন্যতম, যাদেরকে চিরাচরিতভাবে হিজড়া বললে আমাদের সমাজে সকলেই চিনেন।

জন্মগতভাবে এই শারীরিক সীমাবদ্ধতা নিয়ে যারা আমাদের সমাজে ভূমিষ্ঠ হন তাদের পারিবারিক, সামাজিক এমনকি রাষ্ট্রীয়ভাবে বঞ্চনা ও অবহেলার  স্বীকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার এই অবহেলিত নাগরিকদের মর্যাদা ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় নানা উদ্যোগ নিয়েছেন। ভোটার তালিকায় তারা এখন নারী বা পুরুষ হিসেবে নয় সরাসরি হিজড়া পরিচয়েও নিজেদের নাম নিবন্ধন করার অধিকার পেয়েছেন। বিপুল সংখ্যক হিজড়াকে সরকার ভাতাও দিচ্ছে। তবে আমরা মনে করি ট্রান্সজেন্ডারদের ধারাবাহিক ও স্থায়ী উন্নয়নের ধারা নিশ্চিত করতে সবার মানসিকতার পরিবর্তন অত্যন্ত জরুরি।

বেসরকারি এই টেলিভিশন চ্যানেল জনসংযোগ কর্মকর্তা দুলাল খান গণমাধ্যমকে বলেন, বৈশাখী টেলিভিশন স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর এই বছর,  স্বাধীনতার মাস মার্চে নারী দিবস উদযাপনের প্রাক্কালে আমাদের চ্যানেলের সংবাদে এবং নাটকে দুইজন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে যুক্ত করেছি। দেশের মানুষ এই প্রথম কোনও পেশাদার সংবাদ বুলেটিনে খবর পাঠ করতে দেখবেন একজন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে।

আগামী ৮ মার্চ থেকে তাসনুভা আনান নিয়মিত সংবাদ পাঠ করবেন বলেও জানালেন বৈশাখী টেলিভিশনের এই জনসংযোগ কর্মকর্তা।

বিডি রয়টার্স/এ.সি

 

খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত