লাখ টাকার গরুর চামড়া ২৫০

কোরবানির পশুর কাঁচা চামড়া প্রক্রিয়াজাতকরণের কাজ এখনো পুরোদমে শুরু করেননি সাভারের হেমায়েতপুর চামড়া শিল্প নগরীর ট্যানারি মালিকরা।

ঢাকা: রাজধানীতে কাঁচা চামড়া বিক্রির নির্ধারিত স্থান লালবাগের পোস্তা আড়ৎ। তবে প্রতিবছরের মতো এবারও সিটি করপোরেশনের বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে শহরের প্রধান সড়কেও বসেছে চামড়া কেনাবেচার অস্থায়ী হাট। আর এসব হাট বসানোর পেছনে আছেন ট্যানারি মালিকরাই।

রাজধানী ঢাকায় কোরবানির গরুর প্রতি পিস চামড়া গুণগতমান ও আকৃতিভেদে ২৫০ টাকা থেকে ৫০০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে দাম এর বেশি-কমও হচ্ছে।

রাজধানীর সিটি কলেজের উল্টো দিকে সায়েন্সল্যাব ও ল্যাবএইড এলাকা থেকে কলাবাগান মোড় পর্যন্ত বসেছে চামড়া কেনাবেচার অস্থায়ী হাট। সেখান থেকে কাঁচা চামড়া কিনছেন ছোট-বড় অর্ধশতাধিক ট্যানারি মালিক। মূলত তাদের লবণযুক্ত চামড়া কেনার কথা থাকলেও কারখানার উৎপাদন সক্ষমতা বিবেচনা ও তুলনামুলক কম দাম পেতে কাঁচা চামড়াও কিনছেন।

বিকেল ৪টা পর্যন্ত এই অস্থায়ী হাট থেকে ৮০ হাজারের অধিক কাঁচা চামড়া কেনাবেচা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ট্যানারি সংশ্লিষ্টরা।

সরকার লবণযুক্ত চামড়ার মূল্য বেঁধে দিয়েছে। ঢাকায় গরুর প্রতি বর্গফুট চামড়ার দর ঠিক করা হয়েছে ৪০-৪৫ টাকা, ঢাকার বাইরে ৩৩-৩৮ টাকা। কিন্তু কাঁচা চামড়ার মূল্য নির্ধারণ করে দেয়নি।

এই সুযোগ নেয়ার চেষ্টা করছেন কোনো কোনো ক্রেতা। তবে ট্যানারি মালিকদের প্রস্তাবিত দামেই চামড়া ছাড়তে বাধ্য হচ্ছেন অনেক বিক্রেতারা।

বিডি রয়টার্স/এ.সি